This post is also available in: English

spot_img

ইউরোকে পাখির চোখ করছেন লো

- Advertisement -

This post is also available in: English

জোয়াকিম লো জার্মানির কোচ হিসেবে আছেন দীর্ঘদিন ধরে। অনেকের জার্মান ফ্যান হওয়ার কারন হিসেবে তাকে বলা হয়। কিন্তু অনেকের কাছে এখনো ক্ষোভ হয়ে আছে ২০১৮ এর বিশ্বকাপ। এতো বাঘা বাঘা ট্যালেন্ট নিয়ে তিনি একটা ভালো ফর্মেশন তৈরি করতে পারেন নি আর তার ফলাফল প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় যা জার্মান ফুটবল এর ইতিহাস এ দুর্ল্ভ।

জার্মানির বর্তমানে যে পরিমান ট্যালেন্ট আছে তাতে করে ভালো ভাবে কাজে লাগাতে পারলে এক দশক ডমিনেন্ট করার ক্ষমতা রাখে। তার সাথে জার্মানির কন্ট্রাক্ট আছে ২০২২ বিশ্বকাপ পর্যন্ত। কিন্তু সবচেয়ে বড় অগ্নীপরিক্ষা আসন্ন ২০২১ ইউরো। বিশ্বকাপ এর দুঃখ ভোলানোর জন্য এর চেয়ে বড় কোনো সুযোগ আর পাবে বলে মনে হচ্ছে না।

উল্লেখ্য জার্মানি শেষবার ইউরো জিতেছিলো ২৪ বছর আগে ১৯৯৬ সালে। কোচ হিসেবেও লো এর প্রাপ্তির খাতায় শুধু এই ইউরো টাই বাকি। তরুন প্রবীন মিলে হাতে অপশন থাকলেও সমস্যা টা তিনি নিজে। লো কোচ হিসেবে সবচেয়ে বেশি সফল ছিলে ৪-২-৩-১ ফর্মেশন। এই ফর্মেশন এই ফ্রান্স আসন্ন বিশ্বকাপ ঘরে তুলেছে। কিন্তু হঠাৎ করে তিনি ৩-৫-২ ফর্মেশনে যাওয়ার পর ক্রমশই হোঁচট খেতে থাকে দল। সবচেয়ে বড় ধাক্কা বিশ্বকাপ থেকে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায়।

আজকের খেলা কখন, কোন চ্যানেলে দেখতে ক্লিক করুন

২০১৯ সালে জার্মানি অফিশিয়ালি ১০ ম্যাচ খেলে একটিতে হারে আর সেই ম্যাচ এও ৩-৫-২ ফর্মেশন এ ছিলো। সানের মতো প্লেয়ারকে দলে না নেওয়ার জন্য সমালোচিত ছিলেন। এছাড়াও তিনি বাদ দিয়েছেন দলের অনেক অভিজ্ঞতা সম্পন্ন প্লেয়ারদের। কোচ হিসেবে তিনি এখনো আস্থা আছে সবার, কারন তিনি জানেন কিভাবে কামব্যাক করতে হয়।

লো কি পারবেন ২৪ বছরের ইউরো খরা ঘুচাতে? হাতে আছে বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা মিডফিল্ড আর ফরোয়ার্ড ইউনিট, ডিফেন্স এ একটু কাজ করলেই হবে আর গোল কিপিং এ জার্মানির চেয়ে ভালো ইউনিট আর নেই। জার্মান ফ্যানরা তার দিকেই তাকিয়ে।

লেখাটি শেয়ার করুন

spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Related articles

আরো খবর

বিজ্ঞাপনspot_img

LATEST ARTICLES

2,875FansLike
8FollowersFollow
824FollowersFollow
79SubscribersSubscribe